advertisement
আপনি দেখছেন

ইরাকের নাজাফ শহরে অবস্থিত ইরানের কনস্যুলেট ভবনে গত বুধবার রাতে হামলা চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল দেশটির সরকার-বিরোধী বিক্ষোভকারীরা। এরপর শহরজুড়ে কারফিউ জারি থাকার মধ্যেই গতকাল রোববার আবারও সেখানে হামলা ও আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। তবে এতে এখন পর্যন্ত হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

fire at iranian consulateইরানি কনস্যুলেটে আগুন

তুরস্কের আনাদলু এজেন্সির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ইরানি কনস্যুলেট ভবনে আগুন দেয়ার পরপরই দ্রুত ঘটনাস্থনে আসেন নিরাপত্তা কর্মীরা। তাদের প্রচেষ্টায় অল্প সময়ের মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে, তা শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

গত অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া চলমান বিক্ষোভ মঙ্গলবার রাতে নাজাফে ব্যাপক আকার ধারণ করে। নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে এক বিক্ষোভকারী নিহত এবং আরও ৩৫ জন আহত হয়েছেন। ইরানি কনস্যুলেটে আগুনের ঘটনার পরই শহরটিতে কারফিউ জারি করা হয়।

ইরাকে প্রতিবেশী ইরানি হস্তক্ষেপের ক্ষোভ থেকেই ইরানি কনস্যুলেটে হামলার ঘটনা ঘটছে বলে ধরণা করা হচ্ছে। এর আগে গত ৩ নভেম্বর ইরাকের কারবালা শহরে ইরানি দূতাবাসে হামলা চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটে।

সীমাহীন দুর্নীতি, দুর্বল জনসেবা ও বেকারত্বের প্রতিবাদে গত দুই মাস ধরে ইরাক সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন চলছে। অন্যদিকে নিরাপত্তা বাহিনীর দমনাভিযানে এখন পর্যন্ত অন্তত ৩৫০ জনের বেশি বিক্ষোভকারী নিহত এবং সহস্রাধিক আহত হয়েছেন।