advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 27 মিনিট আগে

নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনে বড় ধরনের জয়ের পথে রয়েছে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি। ব্রিটশ গণমাধ্যমগুলো বলছে, বৃহস্পতিবারের ভোটে ৬৫৫ আসনের মধ্যে এখন পর্যন্ত ১২২টির ফলাফল পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৫৫ আসনে জয় পেয়েছে কনজারভেটিভ পার্টি। অন্যদিকে জেরেমি করবিনের নেতৃত্বাধীন লেবার পার্টি ৫৩ আসনে জয় পেয়েছে।

uk pm boris johnson

বিবিসি, আইটিভি ও স্কাই টিভির বুথ ফেরত জরিপ বলছে, ব্রিটিশ পার্লামেন্টে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে ৩২৬টি আসনে জয় প্রয়োজন হবে। তবে এবার কনজারভেটিভ পার্টি একক সংখ্যাগরিষ্ঠতার চেয়েও বেশি অর্থাৎ ৩৬৮টি আসন পেতে যাচ্ছে। যা একক সংখ্যাগরিষ্ঠতার চেয়ে ৮৬টি আসন বেশি।

১৪৪টি ভোট কেন্দ্রের ২৩ হাজার ভোটারের মধ্যে চালানো এ জরিপ আরও বলছে, ২০১৭ সালের নির্বাচনের চেয়ে এবার ৫০টিরও বেশি আসন বেশি পেতে পারে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি। ফলে দীর্ঘ অচলাবস্থার পর এককভাবে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে কনজারভেটিভ পার্টি।

অন্যদিকে বিরোধী দল জেরেমি করবিনের লেবার পার্টি পেতে পারে ১৯১টি আসন। যা ২০১৭ সালের চেয়ে ৭১ আসন কম। দলটির ভোট গেলোবারের চেয়ে ৮ শতাংশ কমে যেতে পারে।

দেশটিতে ২০১৬ সালের এক গণভোটে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগের (ব্রেক্সিট) পক্ষে রায় দেয় জনগণ। এ নিয়ে ক্ষমতার পালাবদল হলেও ব্রেক্সিট এখন পর্যন্ত বাস্তবায়িত হয়নি।

ব্রেক্সিট প্রশ্নে গত তিন বছর ধরে সংসদের অচলাবস্থা নিরসনে দুই বছরের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো গতকাল পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট দেন ব্রিটিশরা। এবারের নির্বাচনে জনসনের দল একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে ব্রেক্সিট ইস্যুর সমাধান হবে। আগামী ৩১ জানুয়ারির মধ্যে দেশটির ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাবার পথ সুগম হবে।

sheikh mujib 2020