advertisement
আপনি দেখছেন

যে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে ভারতে তুলকালাম চলছে তা নাকি সমর্থন করেন না দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। এমনটাই দাবি করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

mamata modi india 1

স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনবিরোধী সভায় শুক্রবার পার্ক সার্কাসে ওই দাবি করেন মমতা। তার যুক্তি, প্রধানমন্ত্রী নিজেই বিলের সমর্থনে ভোট দেননি। অবিলম্বে আইন প্রত্যাহারের দাবিও জানান তৃণমূল নেত্রী।

প্রসঙ্গত, লোকসভা ও রাজ্যসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের ভোটাভুটিতে সংসদের উভয়কক্ষেই গরহাজির ছিলেন নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রী কেন নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের ভোটাভুটিতে সংসদের উভয়কক্ষে উপস্থিত ছিলেন না? পার্ক সার্কাসের সভায় সেই প্রশ্ন তোলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, ‘‘সিএবি এত ভালো, প্রধানমন্ত্রী আপনি ভোট দিলেন না কেন? সংসদে আপনি ছিলেন না। আপনি ভোট দিলেন না। তাহলে আপনিও সমর্থন করেন না। সমর্থন না করলে প্রত্যাহার করে নিন।”

মমতা আরও বলেন, ‘‘লুকিয়ে লুকিয়ে বিল আনে। বিল আনার আগে ভাবনা-চিন্তার সময়ও দেয়নি। মিড নাইটে পাস করিয়ে দিয়েছে। সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে তাই।”

তবে খবরে বলা হয়েছে, লোকসভায় এনআরসি নিয়ে ভোটাভুটিতে গরহাজির ছিলেন তৃণমূলের ৮ সাংসদ। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিল পাশের সময় ভোটাভুটিতে শাসক দলের আট সাংসদ কেন অনুপস্থিত ছিলেন, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে রাজ্যের বিরোধীরা৷

আর তাই বিজেপির মুখ বন্ধ করতে এদিন পাল্টা প্রধানমন্ত্রীর গরহাজিরা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷