advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের ইতিহাসে উহান শহরের নাম থাকবে আতঙ্কের সমার্থক হিসেবে। হুবেই প্রদেশের এই শহর থেকেই প্রাণঘাতী করোনার উৎপত্তি। আক্রান্তের সংখ্যা সর্বাধিক, সবচেয়ে বেশি প্রাণহানিও ঘটেছে এখানেই। সবমিলিয়ে শহরটি এতদিন ছিল যেন মৃত্যুপুরী। তবে প্রায় দুই মাস অবরুদ্ধ থাকার পর এবার প্রাণ ফিরতে শুরু করেছে উহানে, ফিরে এসেছে হারিয়ে যাওয়া উচ্ছ্বাস। 

uhan corona

উহানে দিন দিন কমে আসছে সংক্রমণ এবং মৃত্যু। সপ্তাহখানেক ধরেই মানুষ তাই ফিরতে শুরু করেছে এই শহরে। কিছু কিছু অফিসও খুলে দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ। এরপর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেওয়া হবে। এভাবে স্বাভাবিক ছন্দে ফিরিয়ে আনা হবে উহানকে।   

ইতোমধ্যে জাপানি গাড়ি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান হুন্ডা তাদের অফিস খুলে দিয়েছে। এছাড়া চলতি মাসে শেষ সপ্তাহে একযোগে বেশ কিছু সংস্থা কাজ শুরু করবে উহানে। তাতে করে শহরটি তার হারানো চাঞ্চল্য ফিরে পাওয়ার কথা। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে উহান এখনও বিচ্ছিন্ন।    

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় গত জানুয়ারি মাসের শেষদিকে উহান শহর অবরুদ্ধ করে দেওয়া হয়। বন্ধ হয়ে যায় চীনের অন্যান্য অঞ্চলের সঙ্গে এই শহরের সব প্রকার যোগাযোগ। সংক্রমণ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর গত মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং উহান সফর করলে আস্তে আস্তে তা স্বাভাবিক হতে শুরু করে।

sheikh mujib 2020