advertisement
আপনি দেখছেন

আমেরিকা আবারো বিশ্বকে নেতৃত্ব দিতে ফিরে এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেছেন, পিছিয়ে যেতে নয়, বরং বিশ্বকে ফের নেতৃত্ব দিতে এসেছে আমেরিকা।

joe biden us presidentজো বাইডেন

ডেলাওয়্যার অঙ্গরাজ্যের উইলমিংটনে সাংবাদিকদের সামনে গতকাল মঙ্গলবার বাইডেন এ কথা বলেন। এ সময় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে মিত্রতা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা, কোভিড-১৯ এবং জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলার ওপর গুরুত্বারোপ করেন নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

বাইডেন বলেন, আটলান্টিক ও প্যাসিফিকসহ গোটা বিশ্বে নেতৃত্বে আমেরিকার ঐতিহাসিক ভূমিকা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে তিনি উন্মুখ হয়ে আছেন।

six members biden cabinet innerবাইডেন মন্ত্রিসভার সম্ভাব্য ৬ সদস্যের নাম ঘোষণা

তিনি আরো বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ভূমিকার সব চিত্র বদলে ফেলেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর ফলে এখন ‘আমেরিকা প্রথম, আমেরিকা একা’ নীতি তৈরি হয়েছে। আমেরিকা বর্তমানে এমন এক অবস্থানে রয়েছে, যাতে বৈশ্বিক মিত্রতা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

এর আগে বাইডেন তার মন্ত্রিসভার ৬ জনের নাম ঘোষণা করেন। এর মধ্যে সাবেক ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরিকে জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধির দায়িত্ব দিয়েছেন জো বাইডেন।

প্রসঙ্গত, নির্বাচনী প্রচারের সময় বাইডেন ঘোষণা দিয়েছিলেন যে, তিনি ক্ষমতায় গেলে প্রথমেই আমেরিকাকে প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে ফিরিয়ে নেবেন। নির্বাচনের আগে প্যারিস চুক্তি থেকে যু্ক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহার করেন ট্রাম্প।

এদিকে, বাইডেন প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বও পেয়েছেন ওবামা প্রশাসনের কর্মকর্তা। অ্যান্টনি ব্লিংকেন নামের ওই কর্মকর্তা আগে সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন। এ ছাড়া জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার দায়িত্ব পেয়েছেন জ্যাক সুলিভান। তিনিও ওবামার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পদস্থ কর্মকর্তা ছিলেন।

বাইডেন মন্ত্রিসভার অপর তিন সদস্য হলেন- জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক অ্যাভরিল হাইনেস, অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রী আলেজান্দার মায়োরকাস এবং জাতিসংঘে দেশটির স্থায়ী প্রতিনিধি লিন্ডা থমাস গ্রিনফিল্ড।

মন্ত্রিসভার ওই ছয় সদস্যের নাম ঘোষণা করে জো বাইডেন বলেন, তিনি এমন একটি টিম নিয়ে কাজ করতে চান, যে টিমের সদস্যরা আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের ভাবমর্যাদা পুনরুদ্ধার করতে তাকে সাহায্য করবেন। যাতে তিনি বর্তমান বিশ্বের সামনে থাকা বড় চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা করতে পারেন।

sheikh mujib 2020