advertisement
আপনি পড়ছেন

শ্রীলঙ্কার অ্যাটর্নি জেনারেল সেদেশের সাবেক মন্ত্রী-এমপিসহ ২২ জনকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছেন। কলম্বোর গালে ফেস ও মায়না গো গামা বিক্ষোভস্থলে হামলার ঘটনায় এ গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

sri lanka protest tear gasবিক্ষোভকারীদের উপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত হয়েছেন রাজনীতিক ও পুলিশ কর্মকর্তারা

যাদেরকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী ও এসএলপিপি দলের চিফ হুইপ জনস্টন ফার্নান্দো, পুলিশের সিনিয়র ডিআইজি দেশবন্ধু থেনাক্কন, সাবেক পর্যটন প্রতিমন্ত্রী সানাথ নিশানথা, এসএলপিপির এমপি সাঞ্জীবা এডিরিমান্না, মিলান জয়াথিলকে, মোরাতুয়া শহরের মেয়র সামান লাল ফার্নান্দো, এসএলপিপি নেতা মাহিন্দা খান্ডাগামা।

শ্রীলঙ্কার আইজিপি ও ডিআইজি-সিআইডিকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা তামিল করতে এবং আসামিদের আগামীকাল মঙ্গলবার সকালে আদালতে হাজির করতে বলা হয়েছে।

এর আগে সকালে শ্রীলঙ্কার প্রধান বিরোধীদল জেভিপির যুব সংগঠন সোশ্যালিস্ট ইউথ ইউনিয়ন গালে ফেসে গত সপ্তাহে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ চলাকালে হামলার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে কলম্বোর পুলিশ সদর দপ্তরের সামনে বিক্ষোভ করে। হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় পুলিশ এ পর্যন্ত ২৩০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে বলে সংস্থার মুখপাত্র নিহাল থালদুয়া জানিয়েছেন।

বিক্ষোভকারীদের হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত শ্রীলঙ্কা পুলিশের ওয়েস্ট জোনের সিনিয়র ডিআইজি দেশবন্ধু থেনাক্কন সকালে শ্রীলঙ্কা মানবাধিকার কমিশনের কার্যালয়ে জবানবন্দি দিয়েছেন। এসএলপিপির রাজনীতিকদের পাশাপাশি তাকেও গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছে শ্রীলঙ্কা অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়।