advertisement
আপনি পড়ছেন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, পশ্চিমা সাইবার হামলার শিকার হয়েছে রাশিয়া। তবে তা প্রতিরোধ করতে সক্ষম হয়েছে তার দেশ। এ কারণে হামলাকারীরা কোনো ক্ষতি করতে পারেনি। রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদ সদস্যদের সাথে কথা বলার সময় পুতিন এসব কথা জানান। টিআরটি ওয়ার্ল্ড।

russian president vladimir putin 6ভ্লাদিমির পুতিন

তিনি বলেন, সাইবার হামলা প্রতিরোধ করতে অনেক বেশি চ্যালেঞ্জ নিতে হয়। দিন দিন এই হামলা গুরুতর এবং ব্যাপক হয়ে উঠেছে। পুতিন অভিযোগ করেন, সাইবার হামলার মাধ্যমে রাশিয়ার বিরুদ্ধে সরাসরি আগ্রাসন চালাচ্ছে পশ্চিম। তারা তথ্যের জন্য যুদ্ধ চালাচ্ছে। তবে রাশিয়ার বিরুদ্ধে পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা যেমন ব্যর্থ হয়েছে, তেমনি সাইবার আগ্রাসনও প্রতিরোধ করেছে রাশিয়া।

জাতিসংঘে শান্তি পরিকল্পনা পেশ ইতালির: ইউক্রেনে শান্তি ফেরাতে জাতিসংঘে পরিকল্পনা পেশ করেছে ইতালি। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, তার দেশ ইউক্রেনের জন্য একটি শান্তি পরিকল্পনা জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের কাছে পেশ করেছে।

un logoজাতিসংঘ

ইতালির তুরিনে ইউরোপীয় কাউন্সিলের বৈঠকের সময় ইতালির পররাষ্ট্রমন্ত্রী লুইজি ডি মাইও বলেন, গত বৃহস্পতিবার পেশ করা পরিকল্পনায় মানবিক করিডোর বরাবর বেসামরিক লোকদের সরিয়ে নেওয়ার জন্য স্থানীয় যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানো হয়েছে। এছাড়া একটি সাধারণ যুদ্ধবিরতির শর্ত দেওয়া হয়েছে, যা যুদ্ধ পরিস্থিতিকে ‘দীর্ঘস্থায়ী শান্তির দিকে নিয়ে যাবে’।

ব্রাসেলসের বৈঠকে বক্তব্য দেন ইইউ ফরেন পলিসি প্রধান জোসেপ বোরেল। তিনি বলেন, ইতালির এই পরিকল্পনা সম্পর্কে তিনি সচেতন ছিলেন। ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই সংঘাতের অবসান ঘটাতে সমস্ত প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, যে কোনো আলোচনার শর্তাদি নির্ধারণ করা ইউক্রেনের ওপর নির্ভর করে। যখন আলোচনার সময় আসবে, তখন ইউক্রেন নিজ অবস্থা ও শক্তি বুঝে যুদ্ধবিরতির জন্য আলোচনা করতে সক্ষম হবে বলে তিনি মনে করেন।

চলতি বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ হামলা শুরুর পর থেকে প্রতিরোধ চালিয়ে যাচ্ছে ইউক্রেন। পশ্চিমা সহায়তায় দেশটি এখনও যুদ্ধ ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। তবে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে অনেক। পাশাপাশি রুশ সেনাদেরও বিরাট ক্ষতি সাধিত হয়েছে।