advertisement
আপনি পড়ছেন

ইউক্রেনের একজন গোয়েন্দা প্রধান বলেছেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ক্যান্সারসহ বেশকিছু কঠিন রোগে ভুগছেন। তবে তিনি আগামীকালই মারা যাবেন, এমন অবস্থায় পৌঁছাননি। খবর ডেইলি মেইল।

putin illnessesরাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন

কিয়েভের সামরিক গোয়েন্দা প্রধান কিরিলো বুদানভ বলেন, বেশকিছু কঠিন রোগে আক্রান্ত হওয়ার পরও রুশ নেতার হাতে এখনও কয়েক বছর বাকি রয়েছে।

কিরিলো বুদানভ দাবি করেন, ইউক্রেনে হামলা শুরু করার পরপরই পুতিনকে হত্যার একটি প্রচেষ্টা চালানো হয়। তবে তা ব্যর্থ হয়। অবশ্য এ হামলার ব্যাপারে আর কোনো বিস্তারিত বিবরণ কোনো পক্ষ থেকেই পাওয়া যায়নি।

kiev military spy chief kyrylo budanovকিয়েভের সামরিক গোয়েন্দা প্রধান কিরিলো বুদানভ

ইউক্রেইনস্কা প্রাভদাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বুদানভ আরো বলেন, ইউক্রেনীয়দের বিশ্বাস, পুতিন ক্যান্সারে ভুগছেন। এছাড়া তার আরো কিছু গুরুতর অসুস্থতা রয়েছে। তবে আগামীকালই পুতিন মারা যাবেন এমন আশা করা ঠিক নয়। তার হাতে আরো অন্তত কয়েক বছর আছে। কারো পছন্দ হোক না হোক, এটাই সত্য।

পুতিন মানসিকভাবে ‘বিভ্রান্ত’ অবস্থায় ছিলেন দাবি করে বুদানভ বলেন, তিনি ভেবেছিলেন, তিনদিনের মধ্যে পুরো দেশ তিনি দখল করে নেবেন এবং কিয়েভের প্রশাসনিক ভবনে রাশিয়ার পতাকা উত্তোলন করবেন।

পুতিন কখনো দাবি করেন, তার কাছে বিশ্বের সেরা প্রথম বা দ্বিতীয় সেনাবাহিনী রয়েছে। কিন্তু তৃতীয় মাস পেরিয়ে গেলেও তিনি ইউক্রেন দখল করতে পারেননি। তিনি আসলে ইউক্রেনের সাথে মোকাবেলা করতে পারবেনও না, বলেন বুদানভ।

পুতিনের সাম্প্রতিক অবস্থা সম্পর্কে বুদানভ আরও বলেন, পুতিন উল্লেখযোগ্যভাবে তার কাছে মানুষের প্রবেশাধিকার কমিয়ে দিয়েছেন। কিছু বিশেষ লোককেই কেবল তার কাছে যাওয়ার অনুমতি দেন।