advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 48 মিনিট আগে

বনানীর এফআর টাওয়ারে সংঘটিত অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ঠিক কতোজনের মৃত্যু হয়েছে সেই সংখ্যাটি নিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। মৃতের সংখ্যা নিয়ে কাল থেকেই ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশের কাছ থেকে দুই রকমের তথ্য পাওয়া গেছে। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সংখ্যাটি ২৫ বলে জানা গেছে।

banani fire died

পুলিশ নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সহকারী কমিশনার সুবীর রঞ্জন দাস গতকাল রাত একটায় জানান, নিহতদের তালিকা তার হাতে নেই। তবে হিসাব অনুযায়ী ২৫ জনের মৃত্যুর তথ্য তার কাছে রয়েছে।

কিন্তু একটু পরই ফায়ার ব্রিগেডের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন জানান, তাদের কাছে ১৯ জনের মৃতদেহের তথ্য রয়েছে। তবে তাদের কাছেও নিহতদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা নেই।

ফায়ার ব্রিগেডের হিসাবে গতকালকের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১৯ জন নিহত হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার খুরশিদ আলম বলছেন, একই লাশ দুবার করে গণনা হওয়ার কারণে এমন বিভ্রান্তি হয়েছে। সংখ্যাটা আসলে ১৯ হবে, ২৫ নয়।

কিন্তু পুলিশ বলছে, এই সংখ্যাটি সঠিক নয়। এতে বিভ্রান্তি রয়েছে। পুলিশের হিসাবে মৃতের সংখ্যা ২৫।

গতকাল সারাদিন ধরেই মৃতের সংখ্যা নিয়ে এমন বিভ্রান্তি চলে। সংবাদকর্মীরা একেকসময় একেকজনের বরাত দিয়ে মৃতের বিভিন্ন সংখ্যা গণমাধ্যমে প্রকাশ করেন।

তবে আজ শুক্রবার সকালে বনানীর কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউয়ে আগুন লাগা ভবনটির সামনে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পুলিশের গুলশান বিভাগের উপকমিশনার মুশতাক হোসেন বলেন, বনানী এফআর টাওয়ারে আগুন লাগার ঘটনায় নিহত ব্যক্তির সংখ্যা ২৫ জনে পৌঁছেছে। আহত ৭৩ জন।

দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে মৃতের সংখ্যা নিয়ে পাওয়া এটিই এখন পর্যন্ত শেষ তথ্য।

sheikh mujib 2020