advertisement
আপনি দেখছেন

রাজধানীতে অত্যাধুনিক দু’টি গণশৌচাগার উদ্বোধন করতে গিয়ে ‘এত সুন্দর টয়লেট আমার বাড়িতেও নেই’ বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হক। আজ সোমবার তেজগাঁও ও নাবিস্কোর উল্টো পাশে গণশৌচাগার দুটি উদ্বোধন করেন তিনি।

anisul haque

উদ্বোধনের সময় আনিসুল হক বলেন, আমি দেখেছি, সব জায়গায় আমাদের বোনেরা, বিশেষ করে যাঁরা বাইরে কাজ বা যাতায়াত করেন, তাঁরা সুস্থ ও নিরাপদ শৌচাগার সুবিধা থেকে বঞ্চিত। তাই তাঁদের কথা বিশেষভাবে মাথায় রেখে এ ধরনের শৌচাগার নির্মাণ করা হয়েছে। অঙ্গীকার অনুসারে ঢাকায় ১০০টি টয়লেট নির্মাণ করা হবে।

সবাইকে শৌচাগার ব্যবহার ও সংরক্ষণ করার আহ্বান জানিয়ে আনিসুল হক বলেন, টয়লেট আপনাদের সম্পদ, এটাকে আপনাদেরই সুরক্ষা করতে হবে। এত সুন্দর টয়লেট আমার বাড়িতেও নেই।

এছাড়া ঢাকার ৮৬টি পেট্রলপাম্পের মালিকদের ডেকে পাম্পের পাশের জায়গায় টয়লেট নির্মাণের প্রস্তাব দিয়েছেন বলে জানান তিনি। কিন্তু তারা কেউ সাড়া দেয় নি বলে জানান মেয়র।

আনিসুল হক বলেন, আগামী তিন বছরে ঢাকা অনেক বদলে যাবে। জনগণের কাছে যেসব প্রতিশ্রুতি আমরা করেছিলাম, তার সব কটির কাজ শুরু করেছি। নিরাপত্তার জন্য ঢাকায় সিসি ক্যামেরা বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। ৩০০-এর মতো ক্যামেরা বসানো হয়ে গেছে। দুই মাসের মধ্যে ৬০০ ক্যামেরা বসে যাবে এবং আগামী ছয় মাসের মধ্যে অর্ধেক ঢাকা পুরো সিসি ক্যামেরার আওতায় চলে আসবে।

নবনির্মিত শৌচাগারগুলোতে নারী কেয়ারটেকার ছাড়াও রয়েছে নারীবান্ধব পরিবেশ। এছাড়া প্রতিবন্ধীবান্ধব, সিসি ক্যামেরা দ্বারা সুরক্ষিত, নিরাপদ খাবার পানির ব্যবস্থা, মূল্যবান জিনিস রাখার জন্য কেবিনেট, পেশাদার পরিচ্ছন্নতাকর্মী, সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের ব্যবস্থা রয়েছে বলে জানানো হয়।

 

আপনি আরও পড়তে পারেন

বিএনপিতে আরো নতুন ১৮ মুখ

দেশে বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৬ কোটি

রিজার্ভ চুরির ঘটনায় ২০ বিদেশিকে শনাক্ত

লুঙ্গি কেনো পরা যাবে না, হাইকোর্টের রুল

sheikh mujib 2020