advertisement
আপনি দেখছেন

ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনের ভোট গ্রহণ সুষ্ঠুভাবে হয়েছে বলে দাবি করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। আজ শনিবার ওই দুই আসনের ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার আগ মুহূর্তে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

cec nurul huda 2019 marchসিইসি কে এম নূরুল হুদা- ফাইল ছবি

সিইসি বলেন, ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনের ভোট গ্রহণ সুষ্ঠু হয়েছে। উভয় আসনের কোনো কেন্দ্রেই ভোট গ্রহণে কোনো অসুবিধা হয়নি। নির্বাচন কমিশনের কাছে কোনো ধরনের অভিযোগ আসেনি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জাতীয় নির্বাচনের তুলনায় উপ-নির্বাচনে ভোটারদের তেমন আগ্রহ থাকে না। কারণ এসব খণ্ড নির্বাচনে সরকার পরিবর্তনের কোনো সুযোগ নেই। শুধু নির্বাচিত দুই বা আড়াই বছরের জন্য সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এ ছাড়া বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে আতঙ্কিত হয়ে মানুষ ভোট দিতে যেতে চায় না। তাই উপ-নির্বাচন নিয়ে ভোটার বা প্রার্থীদের মধ্যে আগ্রহ কিছুটা কম।

election buldingনির্বাচন ভবন- ফাইল ছবি

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, ভোটাররা যাতে সুরক্ষিত থাকে এ জন্য ইসি বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। ভোটারদের মাস্ক পরিধান করে ভোট দিতে যাওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তারপরও ভোট কেন্দ্রগুলোতে মাস্ক সরবরাহ, হ্যান্ড ওয়াশ ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) ফিঙ্গারপ্রিন্টের জায়গা জীবাণুনাশক দিয়ে বার বার পরিষ্কার করা হয়েছে। যাতে কেউ সেখান থেকে সংক্রমিত না হয়।

এর আগে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ইভিএমের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। এর মধ্যে ঢাকা-৫ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ৬ জন এবং নওগাঁ-৬ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ৩ জন। গত ৬ মে ঢাকা-৫ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা ও ২৭ জুলাই নওগাঁ-৬ আসনের সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলমের মৃত্যুতে আসন দুটি শূন্য হয়।

sheikh mujib 2020