advertisement
আপনি দেখছেন

আবারো তিউনিসিয়া উপকূলে ৬৪ জন বাংলাদেশিসহ ৭৫ অভিবাসী আটকা পড়েছেন। তারা সবাই ইউরোপ যাচ্ছিলেন নতুন এক স্বপ্ন নিয়ে। মিসরের একটি উদ্ধারকারী নৌকা তাদেরকে উদ্ধার করেছে।

bangladesip workers tunisia

কিন্তু সমস্যা হচ্ছে, কেউই তাদেরকে গ্রহণ করতে রাজি হচ্ছে না। এই অবস্থায় ১২ দিন কেটে গেছে। তাদেরকে খাদ্য ও চিকিৎসা সুবিধা দেয়া হলেও তারা তা গ্রহণে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। তাদের একটিই দাবি, যে করেই হোক ইউরোপে যেতে দিতে হবে।

রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, লিবিয়া থেকে একটি গ্রুপে এসব মানুষ ইউরোপের উদ্দেশ্যে সমুদ্রপথে যাত্রা করেছিলেন। বাংলাদেশ, মরক্কো, সুদান ও মিসরের নাগরিকরা ছিলেন এই নৌকায়। তবে বেশির ভাগই বাংলাদেশি।

মার্কিন গণমাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকা বলছে, নৌকাটি উদ্ধারের পর নতুন জটিলতা দেখা দেয়। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বাঁধ সাধে। তারা জানায়, শরণার্থী শিবিরে জায়গা নেই। এদেরকে গ্রহণ করা সম্ভব নয়। ফলে ২৫ কিলোমিটার দূরে জারজিস উপকূলেই তাদের সময় কাটছে।

রেড ক্রিসেন্টের এক কর্মকর্তা বলেছেন, উদ্ধারকারী নৌকায় আটকেপড়া অভিবাসীদের চিকিৎসা দিতে কয়েকজন চিকিৎসক পাঠানো হয়েছে। ১২ দিন টানা সমুদ্রে আটকা থাকার পর এই অভিবাসীদের অবস্থা খুবই শোচনীয় হয়ে পড়েছে।

উল্লেখ্য যে, এ বছরের প্রথম চার মাসে এই রুটে ১৬৪ জন অভিবাসী ডুবে মারা গেছেন। যার মধ্যে বেশ কিছু বাংলাদেশিও ছিলেন।