advertisement
আপনি দেখছেন

শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ঠিক থাকলে বিভিন্ন রোগ ও সংক্রমণ থেকে বাঁচা যায়৷ আর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির অন্যতম উৎস হলো ভিটামিন সি। বিশেষ করে বর্তমান সময়ে করোনা পরিস্থিতির কারণে বিশেষজ্ঞরা যেহেতু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করছেন, সেহেতু ভিটামিন সি গ্রহণের গুরুত্ব আরো অনেক গুণ বেড়ে গেছে।

vitamin c importanceযেসব কারণে খাওয়া দরকার ভিটামিন সি

ভিটামিন সি পাওয়া যাবে যেসব খাবারে

কিছু ফলে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি পাওয়া যায়। যেমন- কিউই, লেবু, কমলা, পেঁপে, পেয়ারা, আঙুর, জাম্বুরা, আমলকী, আমড়া, স্ট্রবেরির মতো ফলে প্রচুর ভিটামিন সি পাওয়া যায়। অন্যদিকে, ভিটামিন সি সমৃদ্ধ কিছু সবজির মধ্যে রয়েছে ব্রাসেলস স্প্রাউট, ব্রকোলি, মরিচ।

তবে ভিটামিন সি তাপ-সংবেদনশীল৷ তাই রান্নার সময় অতিরিক্ত তাপে যেন সেটা নষ্ট না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

যেসব কাজ করবে ভিটামিন সি

আগেই বলা হয়েছে, শরীরের রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে ভিটামিন সির ভূমিকা অনেক। এ ছাড়া সাধারণ সর্দি-কাশিতেও ভিটামিন সি ভালো কাজ করে। সেইসঙ্গে ত্বক, দাঁত ও চুল ভালো রাখতে সহায়তা করে ভিটামিন সি৷

ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, টিউমার, ক্যানসারসহ নানা কঠিন অসুখের জন্য দায়ী ফ্রি-র‌্যাডিক্য়াল, যা ফরমালিন ও কীটনাশকযুক্ত খাবার খাওয়ার কারণে আমাদের শরীরে প্রতিনিয়ত তৈরি হয়৷ পাশাপাশি দূষিত পরিবেশে বসবাস, অনেক বেশি ফাস্টফুড খাওয়া, মাত্রাতিরিক্ত ওষুধ সেবন ইত্যাদি কারণেও শরীরে ফ্রি-র‌্যাডিক্য়াল তৈরি হয়৷ ভিটামিন সি-র মতো অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এসব ফ্রি-র‌্যাডিক্য়ালের ক্ষতিকর প্রভাব প্রশমন করতে সহায়তা করে।

আমাদের শরীরের মাংসপেশী, হাড়, রক্তনালী, পরিপাকতন্ত্র ও ত্বকে রয়েছে কোলাজেন প্রোটিন। যা কোষের স্বাস্থ্য ও স্থিতিস্থাপকতা ঠিক রাখে৷ কিন্তু মানুষের বয়স হলে কোলাজেনের পরিমাণ কমতে থাকে৷ তাই ত্বক ঝুলে যেতে শুরু করে৷ এই কোলাজেন তৈরিতে ভূমিকা রাখে ভিটামিন সি৷

vitamin c importance innerযেসব কারণে খাওয়া দরকার ভিটামিন সি

অন্যদিকে, সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে শরীরে ভিটামিন সি দরকার৷ কারণ শরীরের কোনো অংশে সংক্রমণ দেখা দিলে সেখানে রোগপ্রতিরোধী কোষ পাঠাতে সহায়তা করে ভিটামিন সি৷ তাই বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে এই ভিটামিনটির গুরুত্ব বেড়ে গেছে।

ভিটামিন সি-এর অভাবে স্কার্ভি নামক রোগ দেখা দেয়। এ রোগের কারণে তাড়াতাড়ি না শুকানো, চুল ও দাঁত পড়া, কালশিটে দাগ পড়া ও জয়েন্টে ব্যথা হতে পারে৷ এই রোগ থেকে বাঁচতে হলে দৈনিক ১০ মিলিগ্রাম সমপরিমাণ ভিটামিন সি খাওয়া যথেষ্ট৷

দৈনিক কতটুকু ভিটামিন সি খেতে হবে

জার্মান স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, একজন পুরুষের দৈনিক ১১০ মিলিগ্রাম ও একজন নারীর ৯৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি খাওয়া উচিত৷ অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের অরেগন স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষকরা বলছেন, একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষকে প্রতিদিন ৪০০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি খাওয়া দরকার।