advertisement
আপনি পড়ছেন

মানুষের রক্তদান একটি স্বাভাবিক ব্যাপার, যা ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য কি না- তা নিয়ে এক ধরনের ধোঁয়াশা রয়েছে অনেকের। এ ব্যাপারে কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা, সেই প্রশ্ন রক্তদাতা ও রক্তগ্রহীতা সবার। এবার জেনে নেওয়া যাক, একজন ডায়াবেটোলজিস্টের অভিমত।

diabetes blood donationডায়াবেটিস-রক্তদান, ফাইল ছবি

আনন্দবাজার পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অসিতবরণ সাহা বলছেন, ডায়াবেটিসের সঙ্গে রক্তদানের কোনো সম্পর্ক নেই অর্থাৎ ডায়াবেটিস আক্রান্তদের রক্তদানে কোনো সমস্যা নেই। এই দুটি ব্যাপারের মধ্যে কোনো ধরনের দ্বন্দ্ব থাকার কথা নয়।

এর ব্যাখ্যায় তিনি বলেন, মানুষের শরীরে ইনসুলিনের মাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় হ্রাস পেলে ডায়াবেটিস দেখা দেয়। এই রোগের একমাত্র কারণ হলো- রক্তে প্যানক্রিয়াসের ইনসুলিন নিঃসরণ কমে যাওয়া। এটিকে টাইপ টু ডায়াবেটিস বলা হয়।

doctor picচিকিৎসক, প্রতীকী ছবি

তবে কেউ দীর্ঘদিন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত থাকায় চোখ, রক্তজালিকা বা কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হলে রক্তদান না করাই ভালো। এ ছাড়া ডায়াবেটিস রোগীদের রক্তদানে বাড়তি কোনো স্বাস্থ্যঝুঁকি নেই। সে ক্ষেত্রে বাড়তি সুরক্ষাবিধি বজায় রাখতে কিছু বিষয় খেয়াল রাখা যেতে পারে। কেবল ডায়াবেটিস রোগী নন, রক্তদানের বেলায় সবাই সব নিয়ম মেনে চলতে পারেন।

চিকিৎসকের পরামর্শ

রক্তদানের আগে ডায়াবেটিস আক্রান্তদের যেসব সুরক্ষাবিধি বজায় রাখা যেতে পারে, সেগুলোর মধ্যে রয়েছে- ১. রক্তদানের আগের রাতে পর্যাপ্ত ঘুমানো। ২. রক্তদানের আগে পুষ্টিকর খাবার যাওয়া। ৩. রক্তদানের আগে পর্যাপ্ত পানি পান করা।

এ ছাড়া রক্তদানের পর যেসব বিষয় মাথায় রাখা যেতে পারে, তার মধ্যে রয়েছে- ১. রক্তে শর্করার মাত্রা কিছুক্ষণ পরপর পরিমাপ করা। ২. সুষম ও পুষ্টিকর খাবার খাওয়া। ৩. রক্তদানের পর কয়েক সপ্তাহ আয়রনযুক্ত খাবার বেশি খাওয়া। ৪. রক্তদানের পরে অসুস্থ অনুভব করলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া।