advertisement
আপনি পড়ছেন

বিদেশে অবস্থানরত মার্কিন নাগরিকরা সহিংসতার শিকার হতে পারন বলে উচ্চ স্তরের সতর্কবার্তা জারি করেছে দেশটির পররাষ্ট্র দপ্তর। আফগানিস্তানে ড্রোন হামলায় আল-কায়দা নেতা আইমান আল জাওয়াহিরিকে হত্যার প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্র তার নাগরিক ও বিদেশে দেশটির স্বার্থের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী হামলার অব্যাহত হুমকি এবং অন্যান্য সহিংস কর্মকাণ্ড নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

us issues worldwide alert for citizenবিশ্বজুড়ে মার্কিন নাগরিকদের প্রতি সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র, ফাইল ছবি

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, হামলাকারীরা আত্মঘাতী অপারেশন, গুপ্তহত্যা, অপহরণ, হাইজ্যাকিং, বোমা হামলাসহ বিভিন্ন ধরনের কৌশল প্রয়োগ করতে পারে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, যেহেতু এ ধরনের সন্ত্রাসী হামলা, রাজনৈতিক সহিংসতা, অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড প্রায়শই কোনো সতর্কতা ছাড়াই সংঘটিত হয়, তাই মার্কিন নাগরিকদের উচ্চ স্তরের সতর্কতা বজায় রাখতে এবং বিদেশ ভ্রমণের সময় ভালোভাবে সচেতন থাকার অনুরোধ করা হচ্ছে। এছাড়া স্থানীয় সংবাদ এবং চলমান ঘটনাবলির ওপর নজর রাখার কথা বলা হয়েছে। পাশাপাশি মার্কিন নাগরিকরা কোনো দেশ সফর করতে চাইলে সেই দেশের মার্কিন দূতাবাসের সাথে আগেই যোগাযোগের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

us fm মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন

গত ৩১ জুলাই যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক কাবুলে এক ড্রোন হামলায় ওসামা বিন লাদেনের সহকারী এবং আল-কায়েদার সর্বশেষ প্রধান আয়মান আল-জাওয়াহিরি নিহত হন। যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে, নাইন-ইলেভেন হামলার অন্যতম মাস্টারমাইন্ড জাওয়াহিরি পরবর্তী সময়েও বিভিন্ন স্থানে মার্কিন স্বার্থে আঘাত হানার পেছনে ভূমিকা রেখেছেন।

এদিকে তালেবান জাওয়াহিরিকে হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করলেও কাবুলে ড্রোন হামলার নিন্দা জানিয়েছে। তালেবান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, এ হামলার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র আন্তর্জাতিক নীতি ও দোহা চুক্তি লঙ্ঘন করেছে। অন্যদিকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন বলেছেন, আল-কায়েদা প্রধানকে আশ্রয় দিয়ে দোহা চুক্তির চরম লঙ্ঘন করা হয়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর