আপনি পড়ছেন

জাতিসংঘের ট্রাইব্যুনাল অবশেষে হেগের আন্তর্জাতিক আদালতে রুয়ান্ডা গণহত্যার বিচার শুরু করেছে। তুতসি জাতিগোষ্ঠীকে নির্মূলে নেতৃত্ব দেওয়ার অপরাধে এই মামলার প্রধান অভিযুক্ত ব্যক্তি ফেলিচিয়েন কাবুজা, যিনি তুতসি জনগোষ্ঠীকে হত্যার মাধ্যমে নির্মূল করার পরিকল্পনা করেছিলেন। খবর বিবিসি।

felicien kabugaফেলিচিয়েন কাবুজা

এই গণহত্যায় প্রায় ৮ লাখ তুতসি ও উদারপন্থী হুতু জনগোষ্ঠীর মানুষকে প্রাণ দিতে হয়েছিল। কাবুজার আইনজীবী তাকে নির্দোষ দাবি করে আবেদন দিলেও তা আদালতে খারিজ হয়ে গেছে। কাবুজা সর্বশেষ শুনানিতে হাজির হতে অস্বীকার করেন।

গণহত্যায় অভিযুক্ত কাবুজার বয়স এখন ৮১ ছুঁইছুঁই। তিনি রুয়ান্ডার সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের একজন এবং গত দশকে তিনি ছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত পলাতক ব্যক্তি। দুই বছর আগে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে গ্রেপ্তার হন তিনি। আদালতে কাবুজা প্রথমবার হাজিরা দেন। সেখানে তার আইনজীবী তাকে নির্দোষ হিসেবে তুলে ধরেন।

অপরিচিত আফ্রিকান হিসেবে কাবুজা প্যারিসের প্রত্যন্ত অঞ্চলের একটি ফ্লাটে বসবাস করছিলেন। ফ্রান্সের গোয়েন্দারা তার ছেলেকে অনুসরণ করতে গিয়ে তাকে খুঁজে পান। তিনি মিথ্যা পরিচয়ে সেখানে আস্তানা গড়তে সক্ষম হন।

এর আগে তিনি পূর্ব আফ্রিকার বেশ কয়েকটি দেশে পলাতক জীবনযাপন করেন। কেনিয়ায় তিনি দীর্ঘদিন ছিলেন এবং সেখানে বিশাল বাণিজ্যিক কর্মকাণ্ড গড়ে তোলেন। তিনি ২৬ বছর ধরে গ্রেপ্তার এড়িয়ে চলছেন।

কাবুজা তুতসি জনগোষ্ঠীর মানুষকে হত্যায় একটি রেডিও স্টেশন ব্যবহার করেছিলেন। যার মাধমে তিনি একদিকে তুতসি গোষ্ঠীকে একত্রিত করেন এবং অপরদিকে হুতুদের অস্ত্র হাতে তাদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়তে উদ্বুদ্ধ করেন। প্রসিকিউটররা এমনই বর্ণনা দিয়েছেন। রেডিও স্টেশনটি থেকে তুতসিদের ‘তেলাপোকা’ হিসেবে গালি দেওয়া হতো।

রুয়ান্ডার সেনা ধনী হিসেবে তুতসিদের হত্যায় নিজেকে ব্যবহারের অভিযোগও তার বিরুদ্ধে রয়েছে। তার বাণিজ্যিক কার্যক্রমের মাধ্যমে হুতুরা চাপাতি পেত। হত্যাকাণ্ড চালাতে তিনি আলাদা বাহিনীও তৈরি করেন।

প্রসিকিউটর রশিদ জানান, শুধু রাইফেল কিংবা চাপাতি নয়, তিনি তুতসিদের নির্মূল করতে বিরাট মিলিশিয়া বাহিনীর ব্যবহার করেন। যাদেরকে তিনি অর্থ খরচ করে পুষেছিলেন। তৎকালীন হুতু সমর্থিত ক্ষমতাসীন দলের পক্ষ নিয়ে তিনি তুতুসি হত্যায় মেতে ওঠেন।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর