আপনি পড়ছেন

শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের দিয়ে এসএসসি পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নের অভিযোগে সিরাজগঞ্জ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ মেমোরিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক শিক্ষককে শোকজ করা হয়েছে।

abdullah al mahmud memorialএসএসসি পরীক্ষার খাতা শিক্ষার্থীদের দিয়েছেন মূল্যায়নের জন্য। ছবি : সংগৃহীত

শনিবার (১ অক্টোবর) প্রতিষ্ঠান পরিচালনা পরিষদের জরুরি সভায় বাংলা বিভাগের শিক্ষক শাহাদত হোসেনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়।

জানা গেছে, সদ্য সমাপ্ত হওয়া এসএসসি পরীক্ষার বাংলা প্রথম পত্রের খাতা দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের দিয়ে মূল্যায়ন করান শিক্ষক শাহাদত হোসেন। গত ২৮ সেপ্টেম্বর শ্রেণিকক্ষের সিসিটিভিতে বিষয়টি দেখা গেছে। এরপর বিদ্যালয়ে শুরু হয় সমালোচনা। পরে পরিচালনা পরিষদ ওই শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়। একই সঙ্গে একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়।

ওই প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মাসুদ রানা ওয়াসিম বলেন, ‘শাহাদত হোসেন একজন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান পরীক্ষক। ভিডিওতে আমরা যা দেখতে পেয়েছি তাতে তার দায়িত্বহীনতাই প্রকাশ পায়। তাকে আপাতত শোকজ করা হয়েছে। আর তদন্ত কমিটিকে বলা হয়েছে তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে।’

তবে অভিযুক্ত শিক্ষক শাহাদত হোসেন বলেন, ‘আমার চোখে কিছুটা সমস্যা, আমি শুধু শিক্ষার্থীদের দিয়ে কাভার পেজের বৃত্তগুলো ভরাট করিয়েছি, খাতা মূল্যায়ন আমি নিজে করেছি। খাতা দেখার এ কাজগুলো অনেকেই অন্যকে দিয়ে করান।’

সিরাজগঞ্জের শিক্ষা কর্মকর্তা শফী উল্লাহ বলেন, ‘বোর্ড থেকে শিক্ষকদের কাছে পাবলিক পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নের জন্য পাঠানো হয়। এসব খাতা শিক্ষার্থীরা দেখতে পাওয়ারও কথা নয়, খাতা মূল্যায়নতো অনেক পরের বিষয়। শিক্ষকের ওই কাজ অপরাধের শামিল। এ বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।’

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর