অফিসে কাজ করা মানেই ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে কাজ করা। এই চেয়ার-টেবিল সংস্কৃতি মানতে চেয়ে অজান্তেই বিপদকে আলিঙ্গন করতে হয়। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় বলা হয়েছে, দিনে ৯ ঘণ্টার বেশি বসে কাজ করলে মৃত্যুঝুঁকি স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশি বেড়ে যায়।

sittingবসে কাজ করলে বাড়ে বিপদ

ব্রিটিশ মেডিক্যাল জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দিনে ৯ ঘণ্টা বা তার বেশি বসে থাকলে মৃত্যুর ঝুঁকি অনেকখানি বেড়ে যায়। এ জন্য এ অবস্থা পাল্টাতে হবে। আর তা সম্ভব না হলে কিছু নিয়ম ও ব্যায়াম করার মধ্য দিয়ে শরীর ঠিক রাখার চেষ্টা করতে হবে।

ওই গবেষণায় বলা হয়, বিশ্বে প্রতি বছর যত মানুষের মৃত্যু হয়, তার মধ্যে ৪ শতাংশের মৃত্যু হয় দীর্ঘক্ষণ বসে থাকার কারণে সৃষ্ট নানা জটিলতা থেকে। সংখ্যাটা একেবারে কম নয়, ৪ লাখ ৩৩ হাজারের মতো। কারণ একটানা বসে থাকলে শরীরের নয়টি অঙ্গ- মাথা, ঘাড়, পিঠ, ফুসফুস, পাকস্থলী, হার্ট, হাত, পা ও পায়ের পাতা ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

স্পেনের সান জর্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানিয়েছেন, বিরতিহীন বা একেবারেই কম বিরতিতে এভাবে বসে একটানা কাজ করলে অথবা টিভি দেখলে টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি ৯০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে যায়।

দ্য ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশনের পরামর্শ অনুযায়ী, ১৮ থেকে ৬৪ বছর বয়সী ব্যক্তিদের সপ্তাহে ১৫০ মিনিট হালকা শারীরিক কসরত করতে হবে। একই সঙ্গে ৭৫ মিনিট কায়িক পরিশ্রম করতে হবে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সারাদিন বসে যাদের কাজ করতে হয়, অন্তত আধ ঘণ্টা পর পর তাদের একবার বিরতি নেওয়া উচিত। সেক্ষেত্রে সুযোগ থাকলে কিছুক্ষণ হাঁটাহাঁটি করা যায়, না পারলে অন্তত বসা থেকে উঠে দাঁড়াতে হবে। এরই মধ্যে যাদের ঘাড়, পিঠে ব্যথা শুরু হয়ে গেছে, তাদের জন্য আধা ঘণ্টা পর পর ফ্রি হ্যান্ড ব্যায়ামের পরামর্শ মেনে চলতে হবে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর

Get the latest news on lifestyle, health, food, and more from our team of expert writers. From fitness tips and nutrition advice to travel guides and entertainment news, we cover the topics that matter most to you. Whether you're looking to improve your health, broaden your horizons, or just stay up-to-date with the latest trends, you'll find everything you need here.