আপনি পড়ছেন

ফেসবুক যা করে, ঠিক তার উল্টোটা করার ঘোষণা দিয়েই শিরোনামে চলে এসেছে ‘এলো’ নামের নতুন একটি সোস্যাল মিডিয়া। শিরোনামেই আসা পর্যন্তই থেমে নেই তাদের সাফল্য। বিবিসি এক খবরে জানিয়েছে, এলোতে যোগ দেয়ার জন্য ঘণ্টায় ৩১ হাজারেরও বেশি লোক আবেদন করছে!

প্রথমত এলো, তৈরি করা হয়েছিলো একদল বন্ধুদের মধ্যে নিয়মিত যোগাযোগ স্থাপনের জন্য। সর্বসাকুল্যে সেখানে ৯০ জন বন্ধু ছিলো। কিন্তু ক্রমেই বাড়তে থাকে এর সম্ভাবনা। ফলে পাবলিকের সামনে এলো তুলে ধরার সিদ্ধান্ত নেন প্রতিষ্ঠাতা পল বাডনিটজ। পল পেশায় একজন বাইসাইকেল ব্যবসায়ী।

ফেসবুক ইউজারদের দেয়া স্ট্যাটাস পড়ে এবং সে অনুযায়ী তাদের সামনে বিজ্ঞাপন হাজির করে। এর মাধ্যমেই কোটি কোটি ডলার আয় করে ফেসবুক। এখানেই ভিন্ন কথা বলছে এলো। তাদের কথা, তারা কখনোই ব্যবহারকারীর সামনে কোনো বিজ্ঞাপন হাজির করবে না। কখনোই না।

এই একটি মাত্র ঘোষণার কারণই এলোকে মনে করা হচ্ছে ফেসবুকের মৃত্যু ঘণ্টা বাজানো নাম। সম্প্রতি ‘টোয়েন্টিফোর লাইভ নিউজপেপারের’ এর পক্ষ থেকে এলোর সাথে যোগাযোগ করা হয়েছিলো। তাদেরকে প্রশ্ন করা হয়েছিলো, তারা যদি বিজ্ঞাপনই না দিবে, তবে তাদের আয় হবে কিভাবে। এলো জবাব দিয়েছে, এলোতে ব্যবহারকারীদের জন্য ডিফল্ট কিছু মৌলিক ফিচার থাকবে। তো কেউ যদি আরো ফিচার যোগ করতে চায়, তবেই গুনতে হবে টাকা; এবং অবশ্যই সেটি খুবই সামান্য।

মজার বিষয় হলো এলো এখনো সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত হয়নি। এর মধ্যেই তারা অতিরিক্ত ইউজারের প্রবেশের কারণে হ্যাং হয়ে গিয়েছিলো! এ বিষয়ে বিবিসিকে এলো বলেছে, “আমরা আসলেই ঝুঁকির মধ্যে পড়ে গিয়েছিলাম। কিন্তু আমাদের শক্তিশালী প্রযুক্তি টিমের কারণে বড় কোনো ক্ষতি হয়নি।”

এলো এখন পর্যন্ত পুরো প্রস্তুত নয় জানিয়ে এলোর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এলো এখনো পরীক্ষামূলক পর্যায়ে আছে। এখনো অনেক ধরনের ত্রুটি আছে। আমরা চেষ্টা দ্রুততম সময়ের মধ্যে সব ধরনের ত্রুটি সরিয়ে সবার সামনে উন্মুক্ত হতে।

মূল সাইট তৈরির পর এলোর সার্বক্ষণিক কার্যক্রম হবে ইউজারদের জন্য যতোটা সম্ভব নতুন নতুন ফিচার যোগ করা। তাদের একটি নিজস্ব অ্যাপস্টোর বা ফিচারের সংগ্রহশালা থাকবে, ইউজাররা চাইলে সেখান থেক অ্যাপ কিনতে পারবে। এটিই হবে তাদের প্রধান আয়ের উৎস।

এলোর আগমন ধ্বনিটা খুব বেশি শব্দ নিয়ে না হলেও ফেসবুকের জন্য এটি কঠিন সংকেতই পাঠাচ্ছে। কারণ একটা সময় ফেসবুকও তেমন সাড়াশব্দ করতে পারতো না, অথচ এখন ফেসবুকই পৃথিবীর সবচেয়ে ‘পঠিত বুক’!

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর