আপনি পড়ছেন

বিভিন্ন দেশে করোনার টিকা নেওয়ার পর কারো কারো দেহে মৃদু থেকে তীব্র পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। মৃত্যুও হয়েছে কয়েকজনের। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরও শোনা গেছে। তথ্যপ্রযুক্তির কল্যাণে এসব সংবাদ আমাদের দেশেও ছড়িয়েছে দ্রুত গতিতে। ফলে করোনার টিকা নেওয়ার ব্যাপারে সাধারণ মানুষের মনে ভয় তৈরি হয়েছে।

a b m abdullahডা. এ বি এম আবদুল্লাহ

কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় সমন্বয় কমিটির উপদেষ্টা এবং প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ গণমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ ব্যাপারে খোলামেলা কথা বলেছেন। টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে তিনি বলেন- সব ওষুধ, ইনজেকশন, টিকারই সাধারণ কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে। অধিকাংশের ক্ষেত্রেই তা মৃদু আকারে দেখা দেয়।

‘যেমন টিকা নেওয়ার জায়গায় হালকা ব্যথা হওয়া, জ্বর, ম্যাজম্যাজে ভাব, শরীর ব্যথা, বমি ভাব ইত্যাদি। যেকোনো টিকা নেওয়ার পর এ ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কমন ব্যাপার।’

নরওয়েতে কোভিডের টিকা নিয়ে মৃত্যুর সংবাদের ব্যাপারে ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ বলেন, অনেকেই নরওয়ের উদাহরণ টেনে টিকা নিতে নিরুৎসাহিত করেন। সত্যিটা হলো, নরওয়েতে যারা মারা গেছেন, তারা সবাই ছিলেন বয়স্ক এবং বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত। বিষয়টি নরওয়ের সরকারের পক্ষ থেকে পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

corona us vaccine

ভারতেও টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার খবর দেখেছি আমরা। ওগুলো সাধারণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার মধ্যেই পড়ে। তাছাড়া সত্যিই টিকার নেওয়ার কারণে কেউ অসুস্থ হয়েছে, নাকি অন্য কোনো কারণে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

টিকা নেওয়ার ব্যাপারে সবচেয়ে আশার কথা হলো, ইতোমধ্যে বিশ্বের ৬ কোটির বেশি মানুষ করোনার টিকা নিয়েছে। যাদের বেশিরভাগেরই কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রয়া দেখা যায়নি।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর