advertisement
আপনি দেখছেন

৩৫ হাজার টন জরুরি সাহায্য নিয়ে রাশিয়ার বিমানবাহিনীর ত্রাণবাহী দু’টি বিমান ভেনিজুয়েলার কারাকাস বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে। এছাড়াও এই ত্রাণ সাহায্যের সাথে একজন কমান্ডারের নেতৃত্বে ১০০ সৈন্য পাঠিয়েছে রাশিয়া। দেশটির প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর সরকারের প্রতি পূর্ণ সমর্থন ঘোষণা করে মস্কো এই পদক্ষেপ নিলো।

rush air craft in venizuella

ভেনিজুয়েলার জনগণের জন্য এই সাহায্য নিয়ে রাজধানী কারাকাসের সাইমন বলিভার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে বিমান দুটি। ওই সময় দেশটির পদস্থ সামরিক কর্মকর্তারা রাশিয়ার ত্রাণবহরকে স্বাগত জানান।

এদিকে নামে ত্রাণবহর হলেও রাশিয়ার পাঠানো ওই বিমান দুটিতে আসলে কী আছে সে সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত নয় ভেনিজুয়েলার গণমাধ্যমগুলো। এছাড়া এই বহরে কেন সেনাসদস্য পাঠানো হয়েছে সে সম্পর্কেও কেউ কিছু জানাতে পারেনি।

তবে এই ঘটনার মাধ্যমে প্রতিপক্ষকে কঠিন এক রাজনৈতিক চাল দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো। অন্তত এমনটাই মনে করছেন দেশটির রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

কিছুদিন আগেই দেশটির প্রধান বিরোধী দলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো দাবি করেছিলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর আর কোনো পৃষ্ঠপোষক নেই। তার এই দাবির পরই ভেনিজুয়েলায় সেনাসদস্যসহ দু’টি বিমান পাঠাল রাশিয়া। এছাড়া ভেনিজুয়েলার অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের ব্যাপারে ওয়াশিংটনকে সতর্ক করে মস্কো।

এদিকে রাশিয়া ছাড়াও ইরান ও চীনসহ আরও বেশ কয়েকটি দেশ নিকোলাস মাদুরোর প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থন জানিয়েছে।