advertisement
আপনি দেখছেন

মালয়েশিয়ায় গ্রেপ্তার রায়হান কবিরকে আগামী ৩১ আগস্ট দেশে ফেরত পাঠানো হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক খাইরুল জাইমি দাউদ এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন বলে আজ বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে নিউ স্ট্রেইট টাইমস।

raihan kabirরায়হান কবির

মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন ডিজি বলেন, ওই বাংলাদেশির বিরুদ্ধে তদন্ত শেষ হলেই তাকে বহিষ্কার করা হবে।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমি ঠিক অনুমান করতে পারছি না কখন (রায়হানকে নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে), তবে বাংলাদেশে সবচেয়ে নিকটবর্তী ফ্লাইট রয়েছে আগামী ৩১ আগস্ট।’

খাইরুল জাইমি আরো বলেন, ইতোমধ্যেই রায়হানের সাময়িক ভিজিটর পাস বাতিল করা হয়েছে। সেইসঙ্গে সে যাতে আর কখনও মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য তাকে কালো তালিকাভুক্ত করা হবে।

rayhan kabir return 31 august malaysia৩১ আগস্ট ফিরতে পারেন রায়হান কবির

উল্লেখ্য, সম্প্রতি কাতারভিত্তিক আল টেলিভিশনের ‘লকড আপ ইন মালয়েশিয়া’স লকডাউন’ শীর্ষক এক ডকুমেন্টারিতে সাক্ষাৎকার দেন রায়হান কবির। যেখানে দেশটিতে থাকা ‘অবৈধ’ প্রবাসী শ্রমিকদের প্রতি লকডাউনের সময় কী রকম অমানবিক আচরণ করা হচ্ছে- সেটি তুলে ধরেন তিনি। প্রতিবেদনে করোনা মোকাবেলায় মালয়েশিয়া সরকারের নেয়া পদক্ষেপে সেখানকার অভিবাসীরা বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন রায়হান।

এর পরই রায়হান কবিরের ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করে দেয় মালয়েশিয়া সরকার এবং তাকে কর্তৃপক্ষের কাছে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়। এ ঘোষণার পর পরই আত্মগোপনে চলে যান ওই বাংলাদেশি যুবক। পরে গত ২৪ জুলাই রায়হান কবিরকে গ্রেপ্তার করে মালয়েশিয়া পুলিশ। এর পর তাকে ১৪ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়।