advertisement
আপনি দেখছেন

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে হাসান দিয়াবের নেতৃত্বে লেবাননে নতুন সরকারের গঠনের সময় দেশটির সংসদের বাইরে বড় ধরনের বিক্ষোভ হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে সংসদে আনুষ্ঠানিক সরকার গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হলে সরকারবিরোধীরা বিক্ষোভ করে। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে জলকামান ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে নিরাপত্তা বাহিনী।

demonstrations in beirut

ভয়েস অব আমেরিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, নতুন সরকারের প্রতিবাদে বুধবার ভোর বেলা সংসদ ভবনের কাছে জড়ো হন বিক্ষোভকারীরা। তারা সংসদ ভবনের বাইরে স্থাপিত নতুন ব্যারিকেডগুলো সরিয়ে অগ্রসর হতে চাইলে বাধা দেয় পুলিশ। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর, পটকা ও লাঠি নিক্ষেপ করে বিক্ষুব্ধরা।

এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধদের ঠেকাতে জলকামান ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে পুলিশ। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিপেটাও করা হয়। তবে এতে হতাহতের বিষয়ে সুস্পষ্ট কোনো এখনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে গত অক্টোবরে লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি পদত্যাগ করেন। কয়েক মাস ধরে এই অচলাবস্থা চলার পর আলোচনার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন হাসান দিয়াব। তার নেতৃত্বে নতুন সরকার গতকাল ক্ষমতা গ্রহণের পর প্রথমবারের মতো বৈঠকেও মিলিত হয়।

lebanese pm hassan diab

আন্দোলনকারীরা বলছেন, লেবাননে কেবল প্রধানমন্ত্রীর পরিবর্তন নয়, সুস্পষ্ট সংস্কার প্রয়োজন। ভঙ্গুর অর্থনীতি ও সংকট মোকাবেলায় স্বতন্ত্র প্রযুক্তিবিদদের সমন্বয়ে সরকার গঠন করতে হবে।