advertisement
আপনি পড়ছেন

ইউক্রেন পুনর্গঠনে অর্থায়নের জন্য রাশিয়ান অলিগার্কদের হিমায়িত সম্পদ ব্যবহার করার উপায় খুঁজছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লেয়েন এ তথ্য জানিয়েছেন। কমিশন গত বুধবার ইউক্রেনকে বড় আকারের ঋণের প্রস্তাব দিয়েছে, যাতে দেশটি রাশিয়ার আক্রমণ প্রতিহত এবং অবকাঠামো পুনর্গঠন করতে পারে। টিআরটি ওয়ার্ল্ড।

european union 1রুশ অলিগার্কদের সম্পদে নজর ইইউর

জেডডিএফ টেলিভিশনকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট বলেন, আমাদের আইনজীবীরা ইউক্রেনের পুনর্গঠনের জন্য রুশ অলিগার্কদের হিমায়িত সম্পদ ব্যবহার করার সম্ভাব্য উপায় বের করতে নিবিড়ভাবে কাজ করছেন। তিনি মনে করেন, ইউক্রেন পুনর্গঠনে রাশিয়ারও অবদান রাখা উচিত।

বাজেট শাসন স্থগিতের মেয়াদ বাড়াবে ইইউ

ইউক্রেনের সংঘাতের কারণে ইইউ সরকারগুলোর অতিরিক্ত ব্যয়ের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা ২০২৩ সাল পর্যন্ত স্থগিত থাকবে। এই নিষেধাজ্ঞা মহামারির কারণে আরোপ করা হয়েছিল। ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ আবার বাড়ানো হচ্ছে । ইইউর নির্বাহী বডি ইউরোপীয় কমিশন এ ব্যাপারে আগামী সোমবার সিদ্ধান্ত নেবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন ২০২০ সালের মার্চে এর সদস্য দেশগুলোর খরচে কিছু নিয়ম আরোপ করেছিল। কারণ কোভিড-১৯ বিধিনিষেধের কারণে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতে ইইউ দেশগুলোতে গভীর মন্দা দেখা দেয়।

ওই নিয়মের আওতায় কোনো দেশের সামগ্রিক অর্থনীতির তিন শতাংশ এবং ঋণের ৬০ শতাংশ ব্যয় সীমাবদ্ধ করা হয়। ২০২৩ সালের ১ জানুয়ারি পর্যন্ত এই নিয়মের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছিল। এখন তা আরো বাড়ানোর কথা বিবেচনা করা হচ্ছে। ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার কারণেই এই সিদ্ধান্ত।

ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা শুরুর পর থেকে বিশ্বব্যবস্থা অনেকটাই পাল্টে গেছে। শরণার্থী ও খাদ্য সংকট চরম আকার ধারণ করেছে। মানুষের জীবনযাপনে দুর্বিষহ ভোগান্তি শুরু হয়েছে। বৈশ্বিক যোগাযোগ ও সমন্বয় কার্যক্রমে চরম বাধার সৃষ্টি হয়েছে। মানুষ ব্যয় কমাতে বাধ্য হচ্ছে। আমদানি-রপ্তানিতে মারাত্মক প্রভাব পড়ছে।